Notice

পলওয়েল কারনেশন

 

35722274১৪ তলা বিশিষ্ট এই ভবনের নিচের দিকে প্রথম চারটি ফ্লোর জুড়ে মার্কেটটির অবস্থান। ওপরের দিকে বিভিন্ন অফিস রয়েছে। মার্কেটটিতে প্রবেশ করা এবং বের হওয়ার জন্য আলাদা দু’টি পথ আছে। মার্কেটটিতে কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা আছে। এছাড়া প্রতিটি ফ্লোরেই একাধিক অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্র আছে।

২০১০  সালে উত্তরায় পলয়েল যাত্রা শুরু হয়।

অবস্থান  ঠিকানা:

উত্তরা আব্দুল্লাহ পুর বাস স্ট্যান্ডের বিপরীতে  এটি অবস্থিত।

ঠিকানা-১০৭/এ, সেক্টর# ৮, উত্তরা, ঢাকা।

সাপ্তাহিক ছুটি

বুধবার ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে মার্কেটটি।

যেসব পণ্য পাওয়া যায়

ঘড়ি, কসমেটিকস, খেলনা, শিশু পোষাক, শাড়ি, থ্রি পিস, জুতা, প্যান্ট, শার্ট, পাঞ্জাবি, জুয়েলারি প্রভৃতি পাওয়া যায়। বিদেশী অনেক পণ্যও এই মার্কেটে পাওয়া যায়। এগুলো চীন, ভারত, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া প্রভৃতি দেশ থেকে আনা হয়।

বিভিন্ন পণ্যের মূল্য

এখানে মোটামুটি কম দামে ঘড়ি পাওয়া যায়। ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা পড়বে এগুলোর দাম। আর সৌখিন ধাঁচের ঘড়ি একটু কম পাওয়া যায়। এগুলোর দাম ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। দেশীয় বিভিন্ন কসমেটিকসের দাম ১০০ থেকে ৪০০ টাকা। আর বিদেশী বলতে প্রধানত ভারতের কসমেটিকস পাওয়া যায়। এগুলোর দাম একটু বেশি। থ্রী-পিসের দাম ১০০০ টাকা থেকে শুরু হয়। কম দামে ১০০০ টাকার শাড়িও পাওয়া যায়। আর বিভিন্ন উৎসব বা বিয়ের শাড়িও কেনা যেতে পারে। এগুলোর দাম ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। জামদানি শাড়িরসহ অন্যান্য শাড়ির ক্ষেত্রে নকশার উপর ভিত্তি করে দাম ওঠা নামা করে।

 

মার্কেটটির দোতলায় ২২৭ নম্বর দোকানে জামদানি হাউজের দোকান আছে, আর তৃতীয় তলায় Raymond shop, Cats Eye এবং Gallery Apex এর শোরুম আছে। মার্কেটটির চতুর্থতলায় একটি ফুড জোন আছে।

 

নিয়মকানুন

বিক্রয়কৃত পণ্য ফেরত নেওয়া হয় না। তবে পণ্যটি অক্ষত থাকলে রশিদ দেখিয়ে বদল করে নেয়া নেয়া যায়। কিছু কিছু পণ্যের ক্ষেত্রে ছয় মাস থেকে এক বছরের ওয়ারেন্টি দেয়া হয়।

 

পাইকারীভাবে পণ্য বিক্রি হয় না। এজন্য পাইকারী ক্রেতারা এখানে আসে না। প্রধানত দেশী ক্রেতারাই কেনাকাটা করতে আসেন, তবে মাঝে মধ্যে কিছু বিদেশী ক্রেতাও কেনাকাটা করতে আসেন।

অন্যান্য মার্কেটের মতই ঋতুভেদে  পণ্যের ধরনে পরিবর্তন হয়। শীতকালে শীতের পোশাক এবং গরমকালে ঢিলেঢালা পোশাক বেশি পাওয়া যায়।

 

ছাড়ের ব্যবস্থা

ঈদ, পূজা, বর্ষবরণ, বিজয় দিবস, বন্ধু দিবস প্রভৃতি উসৎব উপলক্ষ্যে বিভিন্ন দোকানে বিশেষ ছাড়া দেয়া হয়। এই ছাড় ৫% থেকে ২০% পর্যন্ত হয়ে থাকে। এছাড়া বিভিন্ন পণ্য ক্রয়ে লটারির জন্য কুপন দেয়া হয়ে থাকে। উৎসব শেষে লটারি করে পুরস্কার দেয়া হয়।

 

টয়লেট

মার্কেটটির প্রত্যেক তলায় পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

মার্কেটটির বেজমেন্টে প্রায় ১০০টি গাড়ি পার্ক করার ব্যবস্থা আছে। গাড়ি প্রতি ২০ টাকা করে চার্জ দিতে হয়।

 

 

Print
error: Content is protected !!